বন্ধন অনলাইন ইনটারন্যাশানাল মাদ্রসা প্রতিষ্ঠার আহবান

ভর্তি বিজ্ঞপ্তি

বন্ধন অনলাইন ইন্টারন্যাশানাল মাদ্রাসা

(বর্তমানে শুধু প্রাথমিক শ্রেণী এবং ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা পরবর্তীতে দ্রুততম সময়ে নিম্নে উল্লেখিত এ লিপলেটের নিয়মাবলীতে লিখিত পাঠ্যক্রম অনুসারে পি এইচডি পর্যন্ত)

প্রাথমিক জ্ঞাতব্য:

স্বাগতম:আপনাদের ভালোবাসা, সহযোগিতা ও আন্তরিকতা কামনা করে এবং আপনার সন্তানের দায়িত্ব নেয়ার আবেদন জানিয়ে ও তার উজ্জ্বল ভবিষ্যত গড়ার লক্ষ্যে এবং যুগ সমাধান কল্পে  অভিভাবকদের স্বপ্ন পূরণের অঙ্গীকার নিয়ে একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রত্যয়ে নতুন দিগন্ত উন্মোচনী, সাহসী , ব্যতিক্রমি, বীরত্বমাখা এক নব উদ্যোগ এবং এক সর্বাধুনিক যুগের দ্বার উন্মোচনের আহ্বান। আসসালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহ। ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা যেন, কোন এক সময় আমাদের প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসা তার কারুকার্জ খচিত দেওয়ালের মুখে, সুনামের সহিত বলতে পারে বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর সবাই আমার ছাত্র এবং বিশ্বটাকে দেখাবো আমি আপন হাতের মুঠোয় পুরে। তাই আসুন! ভাই, বন্ধু, স্বজন মহান আল্লাহু তা’য়ালার রহমতে আমরা একত্রে প্রতিষ্ঠা করবো এ মাদ্রাসা এবং ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা আমরা পারবো । কারণ আমাদের মূল প্রতিপাদ্য এবং প্রামাণ্য বিষয়, “ইসলামই একমাত্র সত্য ধর্ম” ।

ভিত্তিমূল: মাদ্রসাটি বন্ধন ফাউন্ডেশনের সমাজ সেবা শাখার নিয়ম অনুযায়ী এবং এ শাখার খরচে প্রতিষ্ঠা করা হবে ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা। এর একটি প্রধান দিক এই যে, প্রস্তাবিত এ মাদ্রাসার জন্যে কোন জমি ক্রয় করা হলে বা মাদ্রসার স্থায়ী ভবন নির্মাণ করা হলে, তাহলে তা হযরত ঈমাম মাহাদী (আ:) ও হযরত ঈসা (আ:) এ দু’জনের নামে সমান ভাবে  ক্রয় করা হবে।

উদ্যোক্তা, প্রতিষ্ঠাতা, এবং মাদ্রাসার প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা (সিইও) ও এর পরিচালনার নীতি বা শর্ত   : উপরোক্ত কর্মকর্তা হবেন জনাব মুহাম্মদ আরিফ উল্যাহ সাহেব এবং তিনি এ বলে সবাইকে অঙ্গীকার প্রদান করছেন যে, তিনি মনে-প্রাণে তার সর্বশেষ সামার্থ দিয়ে হলেও মহান আল্লাহু তা’য়ালার বিধান মোতাবেক এ মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার কাজে ব্রতী হবেন এবং আত্মনিয়োগ করবেন। মাদ্রাসার যে কোন কার্জে তার উপরস্থ আর কোন কর্মকর্তা থাকবে না।যেহেতু তিনি এর সমস্ত নিয়ম-কানুন তৈরী করেছেন বা করবেন এবং যেহেতেু তিনি এভাবেই মানুষদেরকে আহবান করতেছেন। আবার যেহেতু প্রতিষ্ঠানের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত এর সকল দায়-দায়িত্ব এবং ঝুঁকি তিনি একাই বহন করবেন বলে কথা দিয়েছেন এবং সেভাবেই তিনি পরিচালনা করতেছেন এবং করবেন; তাই এ পদে তিনি ছাড়া আর কেউ থাকবেন না এবং তিনি অপরাধী সাব্যস্ত না হলে তাহলে তার জীবদ্দশায় অন্য কাউকে তার এ পদে নিয়োগ দেয়া যাবে না; এটিই অধিক যুক্তিযুক্ত হবে। প্রতিষ্ঠানটি বন্ধন ফাউন্ডেশনের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান হিসেবে অধিভূক্ত থাকবে এবং তিনি মানব ও সমাজসেবা মূলক এ প্রতিষ্ঠানের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী এর নিকট জবাবদিহী থাকবেন। বন্ধন ফাউন্ডেশনের অনলাইন এডুকেশন শাখার নিয়ম অনুযায়ী তিনি এ প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠার যাবতীয় খরচ নির্বাহ করবেন এবং তিনি নিজেও তার অংশের লভ্যাংশ ভোগ করবেন। তবে প্রতিষ্ঠানটিতে কোন অধ্যক্ষ বা প্রধান শিক্ষক বা এ জাতীয় কোন পোস্ট থাকবেনা। যেহেতু তিনি নিজেই এ প্রতিষ্ঠান প্রধানের দায়িত্ব পরিচালনা করবেন, তাই তার জন্যে মাদ্রাসার প্রধান হিসেবে ফাউন্ডেশনের নিয়ম অনুযায়ী একটি সম্মানজনক বেতন, ভাতা ও সম্মানি নির্দিষ্ট থাকবে। মাদ্রাসা পরিচালিত হবে বন্ধন ফাউন্ডেশনের প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনা অনুযায়ী। এ বিষয়ে তৃতীয় অন্য কোন পক্ষের কিছু বলার থাকবে না। আবার যেহেতু এ মাদ্রসা আরম্ভ করার দাওয়াত দেয়া সম্ভব হয়েছে বন্ধন ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে, তাই এ  মাদ্রাসার সহিত সম্পৃক্ত সবাইকে এ ফাউন্ডেশনের যে কোন ধরনের একটি একাউন্ট (মাসিক) খুলে এর সাথে যুক্ত থাকতে হবে।

প্রস্‌তাবিত মাদ্রাসার স্থান এবং প্রশাসনিক ও একাড়েমিক কার্জ পরিচালনা: এর সর্বোচ্চ প্রশাসনিক ভবন হবে বন্ধন ফাউন্ডেশন, গোবিন্দপুর, হাজীর বাজার, ফেনী সদর, ফেনী- এর ফাউন্ডেশন অফিস এবং মহান আল্লাহু তা’য়ালার পক্ষে এর প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা হবেন বন্ধন ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা জনাব মুহাম্মদ আরিফ উল্যাহ। বন্ধন ফাউন্ডেশন সম্ভন্ধে জানতে ক্লিক করুন নিম্নোক্ত ইউ আর এল ও এড্রেস সমূহে….our website: www.bondhonfoundation.com  youtube channel: bondhon foundation education, bondhon foundation official facebook page: bondhon foundation education, bondhon foundation official, knowledge of islam facebook group: bondhon foundation group & google address: bondhon foundation

 If you know for more information about us, please search in the those online platforms.

প্রাথমিক ভাবে অপনাদের দোয়া, ভালোবাসা, সহযোগিতা আর ছাত্র-ছাত্রী ভর্তীর বিবেচনায় বন্ধন ফাউন্ডেশন এর ফাউন্ডেশন ভবনের ভিতরের গোড়াউন রুম এবং সামনের ওয়েটিং রুম এ দু’টি রুম একাডেমিক কার্জে এবং এ ভবনের অফিসের রুমটি মাদ্রাসার প্রশাসনিক কার্জে ব্যবহার করা হবে এবং পরবর্তীতে আপনাদের উৎসাহ, সমর্থন ও ছাত্র ভর্তির বিষয়ে সার্বিক সহযোগিতা ও ভালোবাসা থাকলে, তবে ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা  মাদ্রাসার জন্য উপরোক্ত এ দু’টি কাজে আলাদা আলাদা ভবন নির্মাণ করা হবে এবং চেষ্টা করা হবে ইহা যাতে এ ফাউন্ডেশনের ফাউন্ডেশন অফিসের সাথে বা নিকটে নির্মাণ করা যায়।

প্রাথমিক আহ্বান: বর্তমানে শুধুমাত্র প্রাথমিক স্তরের  প্রথম ও  দ্বিতীয় শ্রেণীতে ইনডোর এবং আউটডোর (অনলাইন) উভয় বিভাগে ছাত্র/ছাত্রী ভর্তি করা হবে। এ মাদ্রাসার যে কোন স্তর বা শ্রেণী হতে উত্তীর্ণ ছাত্র/ছাত্রীকে বন্ধন ফাউন্ডেশন কর্তৃক মাদ্রাসার সিইও সাক্ষরিত  মার্কশীট ও  প্রত্যায়ন পত্র প্রদান করা হবে। আমাদের মাদ্রাসায় ভর্তির জন্য 01781472355 এবং 01779711579 এ নাম্বার 2 টিতে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

পাঠ্যক্রমের স্তর বা বিভাগ সমূহ: 

1.পাঠদান অনুসারে: এ মাদ্রসায় থাকবে আটটি বিভাগ। যথা:-

  1. প্রাক প্রাথমিক: দুই বছর মেয়াদী। প্লে থেকে নার্সারী  শ্রেণী। ভর্তির যোগ্যতা 4/5 বছরের ছেলে অথবা মেয়ে শিশু। বালক/বালিকা উভয় বিভাগে। শিক্ষিকা- শুধুমাত্র মহিলা শিক্ষিকা। বই-আমাদের নিজেদের ছাপানো বই এবং নূরানী বোর্ডের, নূরানী পদ্ধতিতে কুরআন শিক্ষা বই  থেকে সিলেবাস করে পড়ানো হবে। প্রার্থীত ছাত্র/ছাত্রীকে অবশ্যই ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

  2. প্রাথমিক:পাঁচ বছর মেয়াদী, প্রথম শ্রেণী থেকে পঞ্চম শ্রেণী পর্যন্ত; 6/7 বছর বয়সের ছেলে অথবা মেয়ে শিশু ভর্তি করা হবে, শুধুমাত্র পূরুষ অথবা শুধুমাত্র মহিলা শিক্ষিকা দ্বারা পাঠদান করানো হবে, বালক/বালিকা উভয় শাখায় এ বিভাগে ভর্তি নেয়া হবে । সরকার পরিচালিত ও সরকারী  নিয়ম-কানুন মান্য করে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণীর পাঠ্য বই সমূহ, হেফজ করানোর উদ্দেশ্যে আল-কোরআন এবং নূরানী বোর্ডের, নূরানী পদ্ধতিতে কুরআন শিক্ষা বই  থেকে সিলেবাস করে পড়ানো হবে। ভর্তিচ্ছু ছাত্র/ছাত্রীকে অবশ্যই কাওমি, এবতেদায়ী অথবা নূরানী অথবা এ মাদ্রাসার যে কোন শাখা হতে প্রাক প্রথমিক শ্রেণী পাশ হতে হবে এবং যে কোন ক্ষেত্রে অবশ্যই ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

  3. মাধ্যমিক:পাঁছবছর মেয়াদী, ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত। 10/11 বছর বয়সের বালক অথবা বালিকা ভর্তি করা হবে (বালক/বালিকা পৃথক পৃথক  শাখায়) , পূরুষ বিভাগে শুধুমাত্র পূরুষ শিক্ষক এবং মহিলা বিভাগে শুধুমাত্র মহিলা শিক্ষিকা দ্বারা পাঠদান করানো হবে । পুরুষ-মহিলা বা বালক-বালিকা একসাথে কোন ভাবেই থাকবে না। সরকার পরিচালিত ও সরকারী  নিয়ম-কানুন মান্য করে বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর পাঠ্য বই সমূহ এবং হেফজ করানোর উদ্দেশ্যে আল-কোরআন  থেকে সিলেবাস করে পড়ানো হবে। ভর্তিচ্ছু ছাত্র/ছাত্রীকে অবশ্যই কাওমি, এবতেদায়ী অথবা নূরানী অথবা এ মাদ্রাসার যে কোন শাখা হতে অবশ্যই পঞ্চম শ্রেণী অথবা সমমানের পরীক্ষায় পাশ হতে হবে এবং যে কোন ক্ষেত্রে অবশ্যই ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

  4. উচ্চ মাধ্যমিক: চারবছর মেয়াদী, 15/16 বছর বয়সের ছাত্র অথবা ছাত্রী ভর্তি করা হবে (বালক/বালিকা পৃথক পৃথক শাখায়) , পূরুষ বিভাগে শুধুমাত্র পূরুষ শিক্ষক এবং মহিলা বিভাগে শুধুমাত্র মহিলা শিক্ষিকা দ্বারা পাঠদান করানো হবে । পুরুষ-মহিলা বা বালক-বালিকা একসাথে কোন ভাবেই থাকবে না। সরকার পরিচালিত ও সরকারী  নিয়ম-কানুন মান্য করেবাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের আলিম শ্রেণীর পাঠ্য বই সমূহ এবং হেফজ করানোর উদ্দেশ্যে আল-কোরআন  থেকে  সিলেবাস করে ও বাংলাদেশ যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর অথবা সরকার কর্তৃক বৈধ যে কোন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকে ছাত্র, ছাত্রীর মন, ব্রেন ও চাহিদা অনুযায়ী সিলেবাস করে পড়ানো হবে। ভর্তিচ্ছু ছাত্র/ছাত্রীকে অবশ্যই বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের দাখিল শ্রেণী অথবা এ মাদ্রাসার যে কোন শাখা হতে অবশ্যই মাধ্যমিক শ্রেণী অথবা কাওমি মাদ্রাসার সমমানের পরীক্ষায় পাশ হতে হবে এবং যে কোন ক্ষেত্রে অবশ্যই ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে।

  5. স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতক (পাশ) ডিগ্রী

  6. স্নাতকোত্তর ডিগ্রী

  7. এমপিল

  8. পিএইচডি

উপরোক্ত 5 থেকে 8 নং বিভাগ এর পাঠ্যক্রম পরে লিখা হবে।

পাঠ্যসূচী: সকল স্তরের পরিপূর্ণ পাঠ্যসূচী পরে প্রণীত হবে। 

  1. জেন্ডার অনুসারে:ইনডোর হিসেবে নিম্নে উল্লেখিত নিয়মাবলী অনুযায়ী এবং আউটডোর হিসেবেঅনলাইনের মাধ্যমে যে কোন বয়সের ছাত্র-ছাত্রী উভয়কেই ভর্তি করা  হবে। 

  2. বৈশিষ্ট্য অনুসারে:প্রাক প্রাথমিক এবং প্রাথমিক এ দু’টি শাখা হবে অনাবাসিক এবং এর উপরের অন্যান্য সকল বিভাগ হবে ডে-কেয়ার। এ মাদ্রাসায় কোন আবাসিক বিভাগ থাকবে না।

নিয়মাবলী (প্রাথমিক, ইনডোর)

বন্ধন অনলাইন ইন্টারন্যাশানাল মাদ্রাসা

 যোগ্যতা: উপরে উল্লেখিত যোগ্যতা অনুযায়ী।

ক্লাসের সময়: রুটিন অনুযায়ী।

বেতন ও প্রদেয় অন্যান্য খরচাদি: প্রাথমিক স্তরের (ইনডোর) ছাত্র/ছাত্রীদের মাসিক বেতন, পরিবহণ ও নাস্তা খরচ সহ প্রত্যেক ছাত্রের বিপরীতে তার অভিভাবককে প্রতি মাসে 2000/-টাকা করে প্রদান করতে হবে। সে সাথে যখন যে শিক্ষা উপকরণের  প্রয়োজন পড়বে  তখন তা অবশ্যই ক্রয় করে দিতে হবে। এ ছাড়া কোন অভিভাবক যদি গাড়ি ব্যবহার না করেন, তবে তাকে প্রতি মাসে 1000/- টাকা প্রদান করতে হবে।

ভর্তির সময়: প্রতি বছর জানুয়ারী মাসের মধ্যে। ওপেনিং বছর হিসেবে এ বছর জুন মাস পর্যন্ত ছাত্র/ছাত্রী ভর্তি করা হবে।

কোটা: বর্তমানে সর্বোচ্চ আট জন। করোনার কারণে আপাতত শুধু চারজনকে  দিয়ে শুরু করা হবে। এদের একজন আমার নিজের সন্তান। বাকী তিন জন বাহির থেকে ভর্তি করা হবে।   

লাইট টিপিনের বিবরণ: অনাবাসিক ছাত্র/ছাত্রীদের জন্য লাইট টিপিনে থাকবে রং চা, সাথে হালকা নাস্তা  (দৈনিক 1 বার, রুটিন অনুযায়ী, প্লে, নার্সারী এবং প্রথম শ্রেণীর জন্য)। আবার সাধারণ ভাবে ডে-কেয়ার ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য থাকবে দুই বেলা নাস্তা ও এক বেলা লান্স। 

পরিবহণ: স্কুল গাড়ি করে শিশুদেরকে বাড়ি থেকে নিয়ে আসা হবে এবং মাদ্রাসা ছুটির  পর পুনরায় তাদেরকে যত্নের সহিত দিয়ে আসা হবে। তবে মাদাসা থেকে বাড়ি পর্যন্ত রাস্তাটি অবশ্যই পাকা হতে হবে এবং তা অনধিক দুই কিলোমিটারের  মধ্যে হতে হবে। সে সাথে প্রতিদিন মাদ্রাসায় আসার জন্য শিশুকে তার অভিভাবক সহ সকাল 8:00 ঘটিকার  সময় অবশ্যই বাড়ির সামনে রাস্তায় অবস্থান নিতে হবে। 

ডে-কেয়ার: শিশুকে বাড়ি থেকে নেয়া , মাদ্রাসায় অবস্থান, লেখা-পড়া এবং লেখা-পড়া শেষে পুনরায় বাড়িতে পৌঁছে দেয়ার সম্পূর্ণ দায়-দায়িত্ব এবং প্রয়োজনীয় আদর-যত্ন ও তাদের অধিকার তা আমাদের জিম্মায় থাকবে এবং এর মধ্যে যদি প্রয়োজন পড়ে তবে সংশ্লিষ্ট শিশুর অভিভাবকের সাথে যোগাযোগ করে উদ্ভূত সমস্যার সমাধান করা হবে (যদি প্রয়োজন পড়ে, তবে আমরা ফোন করার সাথে সাথে  অবশ্যই সংশ্লিষ্ট শিশুর অভিভাবককে  সাড়া দিতে হবে)। 

শিক্ষা উপকরণ: বই, ডায়েরী, খাতা, কলম ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সবগুলো  শিক্ষা সামগ্রী অত্যন্ত সুলভ মূল্যে মাদ্রাসা থেকে প্রদান করা হবে। বাহির থেকে কোন কিছু কেনা যাবে না এবং সম্মানিত অভিভাবকদের এ বিষয়ে কোন ধরনের টেনশন ফিল করার প্রয়োজন নাই। শুধুমাত্র যখন যা প্রয়োজন পড়বে তখন সংশ্লিষ্ট অভিভাবককে বললে, তাকে তা বুঝার চেষ্টা করতে হবে ও বুঝে শুনে কিনে দিতে হবে। তবে শিশু বাড়ি যাওয়ার সময় তাকে কোনশিক্ষা সামগ্রী বাড়িতে নিতে দেয়া হবে না। যেহেতু ইহা একটি অনলাইন মাদ্রাসা অভিভাবকগণ বাড়িতে বসেই বা যে কোন স্থান থেকে তার সন্তানকে দেখতে পারবে বা যোগাযোগ করতে পারবে।

মাদ্রাসার ড্রেস ও বেইস: বন্ধন অনলাইন  ইনডোর মাদ্রাসার ড্রেস ও বেইস হবে নির্দিষ্ট। প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রীর জন্যে তার অভিভাবককে কমপক্ষে দুই সেট ড্রেস ও বেইস মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের নিকট থেকে মাদ্রসা অফিসে এসে নিজ খরচে বানিয়ে নিতে হবে। শিশুদের ছেলে, মেয়ে উভয়ের জন্যে নির্দিষ্ট থাকবে সাদা আরাম দায়ক টরে কাপড়ের ড্রেস এবং উভয়ের মাথায় থাকবে হালকা কাপড়ের টুপি ও ঘোমট। যা উপস্থিত অভিভাবকবৃন্দদেরকে বুঝিয়ে দেয়া হবে। বাকী বিষয় গুলো পরে জানানো হবে।

বেতন ও অন্যান্য পাওনা পরিশোধের প্রণালী:  মাসিক বেতন, পরিবহণ ও মাদ্রাসার অন্যান্য পাওনা পরিশোধের জন্য সম্মানিত অভিভাবকগণ শুধুমাত্র  bondhonfoundation.com  এ ওয়েব সাইটের মাধ্যমেই (বিকাশ বা এ জাতীয় মোবাইল ব্যাংক ব্যবহার করে) পরিশোধ করবেন। ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা অফিসে এসে সরাসরি কোন টাকা দেয়ার প্রয়োজন  হবে না। সে সাথে মাদ্রাসার প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা (সিইও) জনাব মুহাম্মদ আরিফ উল্যাহ সাহেব বা অন্য কোন টিচারের সাথে কথা বলতে হলেও এ ওয়েব সাইটের মাধ্যমেই লাইভে এসে যে কোন স্থান থেকে কথা বলা যাবে।

বেতন ও অন্যান্য পাওনা পরিশোধের নিয়মাবলী: প্রতি মাসের 10 তারিখের মধ্যে গত মাসের বেতন ও মাদ্রাসার অন্যান্য পাওনা পরিশোধ করে ফেলতে হবে। একই পরিবারের একাধিক সদস্য থাকলে সেক্ষেত্রে প্রতিজন সদস্যের জন্য 10% বেতন ও অন্যান্য খরচাদি মওকুফ করা হবে। বেতন পরিশোধের জন্য আমাদের ওয়েব সাইট ও সফটওয়্যারে একটি প্রোপাইল ও একাউন্ট খোলা হবে। সেখানে কোন্ অভিভাবক কখন কত দিয়েছেন এবং মাদ্রসার নিয়ম অনুযায়ী মাদ্রসা কর্তৃপক্ষ আর কত পাওনা আছে সে নিজে এবং যে কেউ খুব সহজে তা দেখতে পারবে। সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দকে খুব সহজে এবং অতি অল্প সময়ে প্রয়োজন মোতাবেক তা বুঝিয়ে দেয়া হবে অথবা প্রয়োজনে মাদ্রাসা অফিসে এসে প্রিয় অভিভাবকবৃন্দগণ প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় পাওনা পরিশোধ করবেন। আর এ অপশানটি পরবর্তীতে হয়ত নাও থাকতে পারে এবং এ মূহুর্তে এ বিষয়ে অযথা ঘাভড়ানোর কোন প্রয়োজন নেই।

ভিডিও ধারন ও প্রচার: ছাত্র-ছাত্রীদেরকে একদিন পর একদিন অথবা উপস্থিত পূর্ব পাঠের উপর ভিড়িও ধারন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে হবে এবং ধারনকৃত এ ভিডিও বন্ধন ফাউন্ডেশনের অনলাইন প্ল্যাটফর্ম সমূহে প্রকাশ ও প্রচার করা হবে। সে লক্ষ্যে বন্ধন ফাউন্ডেশনের সবগুলো অনলাইন  প্ল্যাটফর্ম সকল অভিভাবককে সাবস্ক্রাইব, লাইক, শেয়ার, ফলো ও কমেন্টস ইত্যাদির মাধ্যমে প্রচার ও প্রসার করার জন্য চেষ্টা করতে হবে। যাতে ছোট, বড়, হত বঞ্চিত থেকে ধনী সকলে এ ধরনের তথা ধর্মীয় জ্ঞান অর্জন করার সুযোগ পায়। আবার ভিড়িও ধারন অনুষ্ঠানের সর্বোচ্চ ক্ষমতার অধিকারী থাকবেন মহান আল্লাহু তা’য়ালার পক্ষ থেকে মাদ্রাসার সিইও। এ বিষয়ে অন্য কেউ তাকে প্রলুব্ধ করতে পারবে না।

 

  নিয়মাবলী (প্রাথমিক, আউটডোর)

বন্ধন অনলাইন ইন্টারন্যাশানাল মাদ্রাসা

সাধারণ নিয়মাবলী: যে কোন বয়সের ছাত্র/ছাত্রী পাঠ্যক্রমের যে কোন স্তরে ভর্তি হতে পারবে এবং ইচ্ছে করলে বা  প্রয়োজন মনে করলে ভর্তি না হয়েও নিজকে নিজে শুধু ভিডিও দেখে যে কোন স্তরের যে কোন বিষয়ের  এ শিক্ষা গ্রহণ করতে পারবে। সকলের উদ্দেশ্যে ইউটিউব ও ফেসবুকে কারিকুলাম অনুযায়ী ভিডিও আপলোড করা হবে। ভর্তিকৃত অনলাইন ছাত্র/ছাত্রীদেরকে প্রতি সপ্তাহে একবার আমাদের মাদ্রাসা কর্তৃক মনোনীত মাদ্রসায় বাস্তব ক্লাসে উপস্থিত হতে হবে এবং তাদেরকে “ধারনকৃত ভিডিও ক্লাসের” প্রয়োজনীয় সিডি প্রদান করা হবে। সে সাথে তাদেরকে বই ও শিক্ষা উপকরণ সমূহ  আমাদের মনোনীত মাদ্রাসা সমূহ হতে কিনে নিতে হবে। আউটডোর ছাত্র-ছাত্রীদের কোন ড্রেস এবং বেইস লাগবে না। যে বিষয় গুলো সম্ভন্ধে পরে জানানো হবে।

বেতন ও প্রদেয় অন্যান্য খরচাদি:আউটডোর অনলাইন ছাত্র/ছাত্রীদেরকে মাত্র 100/- টাকা দিয়ে ভর্তি হতে হবে এবং মাসিক বেতন হিসেবে প্রতিমাসে 200/- টাকা করে প্রদান করতে হবে। সে সাথে সবগুলো বা যখন যে শিক্ষা উপকরণের  প্রয়োজন পড়বে  তখন তা অবশ্যই শুধুমাত্র আমাদের মনোনীত মাদ্রসা হতে কিনে নিতে হবে। এছাড়া প্রতি তিন মাস পর আমাদের মনোনীত মাদ্রসায় এসে ত্রৈমাসিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষার ফি এবং এ বিষয়ক অন্যান্য বিষয় সম্ভন্ধে পরে জানানো হবে।

বেতন ও অন্যান্য পাওনা পরিশোধের প্রণালী:  মাসিক বেতন ও মাদ্রাসার অন্যান্য পাওনা পরিশোধের জন্য সম্মানিত অভিভাবকগণ শুধুমাত্র  bondhonfoundation.com  এ ওয়েব সাইটের মাধ্যমেই  (বিকাশ বা এ জাতীয় মোবাইল ব্যাংক ব্যবহার করে) পরিশোধ করবেন। ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা অফিসে এসে সরাসরি কোন টাকা দেয়ার প্রয়োজন  হবে না। সে সাথে মাদ্রাসার প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা (সিইও) জনাব মুহাম্মদ আরিফ উল্যাহ সাহেব বা অন্য কোন টিচারের সাথে কথা বলতে হলেও এ ওয়েব সাইটের মাধ্যমেই লাইভে এসে যে কোন স্থান থেকে কথা বলা যাবে।

বেতন ও অন্যান্য পাওনা পরিশোধের নিয়মাবলী: প্রতি মাসের 10 তারিখের মধ্যে গত মাসের বেতন ও মাদ্রাসার অন্যান্য পাওনা পরিশোধ করে ফেলতে হবে। একই পরিবারের একাধিক সদস্য থাকলে সেক্ষেত্রে প্রতিজন সদস্যের জন্য 10% বেতন ও অন্যান্য খরচাদি মওকুফ করা হবে। বেতন পরিশোধের জন্য আমাদের ওয়েব সাইট ও সফটওয়্যারে একটি প্রোপাইল ও একাউন্ট খোলা হবে। সেখানে কোন্ অভিভাবক কখন কত দিয়েছেন এবং মাদ্রসার নিয়ম অনুযায়ী মাদ্রসা কর্তৃপক্ষ আর কত পাওনা আছে সে নিজে এবং যে কেউ খুব সহজে তা দেখতে পারবে। সম্মানিত অভিভাবকবৃন্দকে খুব সহজে এবং অতি অল্প সময়ে প্রয়োজন মোতাবেক তা বুঝিয়ে দেয়া হবে অথবা প্রয়োজনে মাদ্রাসা অফিসে এসে প্রিয় অভিভাবকবৃন্দগণ প্রতিষ্ঠানের যাবতীয় পাওনা পরিশোধ করবেন। আর এ অপশানটি পরবর্তীতে হয়ত নাও থাকতে পারে এবং এ মূহুর্তে এ বিষয়ে অযথা ঘাভড়ানোর কোন প্রয়োজন নেই।

 ক্লাস রুটিন (প্রথম শ্রেণী)

বন্ধন অনলাইন ইন্টারন্যাশানাল মাদ্রাসা

8:30-9:00–আরবী/আদ্ দুরূসুল আরাবিয়্যাহ্

9:10-9:40–আল-আসমাউল হুসনা

9:50-10:20–বাংলা/ইংরেজী

10:30-11:00–গণিত

11:10-11:40–কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ

11:50-12:20–নুরানী পদ্ধতিতে কুরআন শিক্ষা

                      (মাসআলা+হাদীস শরীফ)

12:30-1:00–আকাইদ ও ফিকহ্

-:ছুটি:-

ক্লাস রুটিন (দ্বিতীয় শ্রেণী)

বন্ধন অনলাইন ইন্টারন্যাশানাল মাদ্রাসা

8:30-9:00–হেফজ/আল-আসমাউল হুসনা

9:10-9:40–হেফজ/আল-আসমাউল হুসনা

9:50-10:20–আরবী/বাংলা(1দিন পর 1দিন)

10:30-11:00–গণিত/ইংরেজী(1দিন পর 1দিন)

11:10-11:40–হেফজ

11:50-12:20–হেফজ

12:30-1:00–হেফজ/(মাসআলা+হাদীস শরীফ)

                      নুরানী পদ্ধতিতে কুরআন শিক্ষা

1:00-2:30–বিরতি

2:30-3:00–হেফজ

3:10-3:40–হেফজ/আকাইদ ও ফিকহ্

3:50–4:20–কুরআন মাজিদ ও তাজবিদ

-:ছুটি:-

পরবর্তী শ্রেণী সমূহের রুটিন ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা পরে প্রকাশ করা হবে।

বন্ধন ফাউন্ডেশনের সদস্যদের প্রতি জ্ঞাতব্য:আপনাদের প্রতি আমার আন্তরিক সালাম ও মোবারকবাদ রইলো। আপনাদের মাধ্যমে আমি সবাইকে জানাতে চাই যে, দেখুন আমি বড় বড় কথা বলছি, আসলে আমি পারবো কিনা, ইহা আপনাদের নিকট একটি প্রশ্ন? দেখুন, কাজী নজরুল ইসলাম বলেছেন, আল্লাহ’র কাছে চেওনা কখনো ক্ষুদ্র জিনিস কিছু।আর এটি হাদিস থেকেও সমর্থনকৃত। আসলে বড় কিছু পাওয়ার আশা থাকলে ছোট কিছু হলেও পাওয়া যেতে পারে। আমি লক্ষ করেছি, আমি যেন, আপনাদের কাছে গেলে ভয় পাচ্ছি। এটা সত্য যে, আমার বাড়ির লোকেরা আমার সাথে যেভাবে রিলেটেড (আত্মীয়তার রিলেশান হিসেবে) বাহিরের লোকেরা কিন্তু ঐ ভাবে রিলেটেড না; তাই আপনাদের সাথে রাগান্বিত হয়ে যাওয়ার প্রশ্নই আসে না । এছাড়া আমি সাহাবীদের (রা:) মন-মানষিকতার মানুষ। কিন্তু তাই বলে আমি চটে যাবো তা কিন্তু না। বরং আমার এ ছেচল্লিশ বছর বয়সে এবং আমি মজলুম হওয়া সত্ত্বেও এ পর্যন্ত আমি কারো সাথে রাগ করিনি। তাই আপনাদের প্রতি অনুরোধ আমাকে আর একটু সময় দিন, আর একটু সহযোগিতা করুন। আসুন আমরা সবাই মিলে গড়ে তুলি শান্তিময় একটি সুশীল সমাজ।

-:সমাপ্ত:-

[দায়বদ্ধতা, জবাবদিহীতা ও স্বচ্ছতা: এ পাঠটি আমার ব্লগসাইট bondhonfoundation.com এ লিখিত আকারে এবং bondhon foundation education এ নামীয় ইউটিউব চ্যানেল এবং এ একই নামীয় ফেসবুক পেজে ভিডিও আকারে পোস্ট করা হবে ইনশা’আল্লাহু তা’য়ালা। এ প্রবন্ধ ও এর ভিডিও’র সম্পূর্ণ দায়ভার আমার নিজের।যেহেতু মানুষ ভূল-ত্রুটির উর্দ্ধে নয়, তাই ভূল-ত্রুটি সমূহ (যদি থাকে) সংশোধন করা বা আমাকে অনুপ্রেরণা দেয়ার লক্ষ্যে কমেন্টস দিয়ে, লাইক এবং শেয়ার করে ও ইউটিউব চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করে আমাকে উৎসাহ দেয়ার অনুরোধ রাখছি। আমার যে কোন লিখার এবং ভিডিও এর সংশোধন ও আপডেট এর বিষয়ে আমি শুধু আমার এ ব্লগসাইটটিতেই প্রকাশ করবো। তাই আমাকে দোষী সাব্যস্ত করার আগে অন্তত একবার আমার এ সাইটটিতে ক্লিক করে bondhonfoundation.com আপনার ঐ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কোন সংশোধনী বা আপডেট আছে কিনা তা দেখে নেয়ার জন্য এবং আমাকে আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ দেয়ার লক্ষ্যে আমার সাথে যোগাযোগ করার জন্য বা যেকোন ভাবে আমাকে পরামর্শ প্রদানের জন্য ( 01718981344 (ইমু), 01781472355, ইমেইল: a30761223@gmail.com, web: bondhonfoundation.com )  বিশেষ ভাবে অনুরোধ করা হলো। আবার নরমালিই আমার যে কোন প্রবন্ধ আমার মূল সাইট, অর্থাৎ এ সাইটটি থেকে (ক্লিক করুন) bondhonfoundation.com পড়লে , তবে ইহা বেস্ট হবে বলে আমি মনে করি। অন্যদিকে অন্যান্য সাইট সমূহে হয়তো প্রত্যেকটি প্রবন্ধ বা ভিডিও সব সময় প্রকাশ করা সম্ভব হবে না বা বিচ্ছিন্ন ভাবে কোন একটি বিষয়ের কোন একটি পার্ট অনলাইনের যে কোথাও যে কোন কারণেই হোক না কেন হয়তো প্রকাশিত হতে পারে, এজন্যে পুরো বিষয়টি বুঝে না আসলে, এ ধরনের বিষয় গুলো সমাধানের লক্ষ্যে আপনাদের প্রতি আমার উপরোক্ত মূলসাইটে ভিজিট করার অনুরোধ রইলো। আর এমনিতেই আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো আমি লম্বা লম্বা ভিডিও পোস্ট করি, যাতে আপনাদের ধর্জচ্যুতি হয়। তাই কোন  একটি বিষয় যদি আপনার বুঝে না আসে, এজন্যে সংশ্লিষ্ট ঐ বিষয়ক পরবর্তী বা পূর্ববর্তী প্রবন্ধ ও এ বিষয়ক ভিডিও  শুধুমাত্র bondhon foundation education অথবা bondhon foundation official এ ইউটিউব চ্যানেল বা ফেসবুক পেজ থেকে, ইউটিউব বা ফেসবুকে সার্চ করে] দু’টিই দেখার ও পড়ার (উপরোক্ত ওয়েবসাইট থেকে) অনুরোধ রইলো। আবার আমি পবিত্র কুরআন শরীফ, হাদীস শরীফ বা কোন দোয়া-দরুদ মুখস্থ করণ বা প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শন বিষয়ক ভিডিও ব্যতিত অন্যান্য সকল ভিডিও রেকডিং এর পূর্বে অবশ্যই প্রথমে এ  বিষয়ক প্রবন্ধ লিখবো এবং এর পর সংশ্লিষ্ট এ বিষয়ে ভিডিও নির্মাণ করবো, যাতে লিখা ও বলা, উভয় মাধ্যমে কোন একটি বিষয়কে আমি কী বলতে চাই, তা ভালো ভাবে বোঝানো যায়। যাক লিখা আর লম্বা না করে কলম, কালি, ইসলাস শিক্ষা, ইসলাম প্রচার ও মানব সেবা; এ কর্মগুলোর মধ্য দিয়ে জীবন অতিবাহিত করতে পারার জন্য মহান রবের নিকট আমার জন্য সকল পাঠক, শ্রোতা ও দর্শকবৃন্দকে দোয়া করতে সবিনয় অনুরোধ করছি।]

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বন্ধন ফাউন্ডেশন: